GT Bible Studies    

    Bangla    


Navigation Glad Tidings Bible Studies

দেখিনি তাই বিশ্বাস করিনি (ইউহোন্না ২০:১৯-২৯)


ইঞ্জিল শরীফে থোমার কথা মাত্র তিনবার লেখা আছে। দলনেতা এই আয়াতগুলো পড়ুন। ইউহোন্না ১১ঃ৭-৮, ১৬ এবং ১৪ঃ ৫-৬ আয়াত।

১. থোমার চরিত্রের ভাল দিকগুলো কি ছিল ? খারাপ দিকগুলোই বা কি ছিল ?
  • আপনার কি মনে হয় কেন হজরত ঈসা এমন একজন ব্যক্তিকে তাঁর সাহাবী হিসাবে নির্বাচন করেছিলেন ?
  • সেই রাতে থোমা কেন অন্যান্য সাহাবীদের সাথে ছিলেন না, এর বিভিন্ন কারণগুলো নিয়ে চিন্তা করুন।
    ২. সাহাবীদের মধ্যে কেউ কেউ ঈসা মশীহের শূন্য কবর এবং কাফনের টুকরো কাপড়গুলো দেখেছেন আর মগ্দলীনি মরিয়মের সাক্ষ্য শুনেছেন। তারা কি ঐ সময়ে হজরত ঈসার পুনরুত্থানের উপর ঈমান এনেছিলেন ? (১৯)
    ৩. তৌরাত, জবূর ও নবীদের কিতাব থেকে ভবিষ্যতবানী, ঈসা মশীহের নিজের ভবিষ্যতবানী এবং দশজন ঘনিষ্ট বন্ধুর অসংখ্য সাক্ষ্য : এই তিনটি প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও কেন থোমা ঈসা মশীহের পুনরুত্থানে বিশ্বাস না করার সিদ্ধান্ত নিলেন ? (২৫)
  • কোনটি আপনার কাছে গ্রহণযোগ্য হয় : থোমা সব প্রমাণগুলো পাওয়ার কারণে ঈমান এনেছিলেন , অথবা তারপরও তিনি বিশ্বাস করেননি ?
    ৪. না দেখে কোন বিষয়টি বিশ্বাস করা আপনার কাছে কঠিন মনে হয় ?
    ৫. ঐ সপ্তাহ জুড়ে, থোমাই একমাত্র সাহাবী ছিলেন যিনি অন্যান্য সাহাবীদের মত আনন্দ করার কোন কারণ খুঁজে পাননি। আপনার কি মনে হয় ঐ আটটি দিন তার কাছে কেমন লেগেছিল ?
  • কেন থোমা নিজের পথে না চলে অন্যান্য সাহাবীদের সাথেই থেকে গেলেন ?
  • ঐ সময়ে যদি থোমা তার বন্ধুদের সঙ্গ ছেড়ে চলে যেতেন , তাহলে কি হতো ?
  • আমাদের ঈসায়ী ঈমানের কিছু বিষয়ের উপর সন্দেহ থাকা অবস্থায় যদি আমরা ঈসায়ী সহভাগিতা ত্যাগ করি, তাহলে আমাদের কি হবে ?
    ৬. এক সপ্তাহ পরে যখন নিজের কথাগুলোই থোমা ঈসা মশীহের মুখ থেকে শুনতে পেলেন, তখন তার কেমন লাগছিল বলে আপনার মনে হয়? (২৭)
    ৭. সমস্ত ইঞ্জিল শরীফে থোমাই একমাত্র ব্যক্তি যিনি ঈসা মশীহকে শুধু 'ইব্নুল্লাহ' না ডেকে স্বয়ং ' আল্লাহ' বলে সম্বোধন করেছেন (২৮)। ঈসা মশীহ যে সত্যিই আল্লাহ তা আমাদের জন্য কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ ?
  • আপনি কি থোমার মত একইভাবে হজরত ঈসাকে স্বীকার করতে পারেন ?
    ৮. ২৯ আয়াত আজ ব্যক্তিগতভাবে আপনাকে কি বলছে ?
  • আল্লাহর রহমত ও দয়া দেখা বা অভিজ্ঞতা নেবার আগেই কেন আমাদের ঈমান আনা প্রয়োজন ?
    ৯. কিতাবের এই অংশ অনুসারে, যে ঈসা মশীহের উপর ঈমান আনতে চায়, কিন্তু তা পারে না তার প্রতি ঈসা কেমন ব্যবহার করেন ?
  • যে ঈমান সন্দেহের সাথে সবসময় যুদ্ধ করছে আর যে ঈমানে কখনও সন্দেহ করে না- এই দুইয়ের মধ্যে পার্থক্য কি ?

    সুখবর : হজরত ঈসা যখন ক্রুশের উপর ছিলেন তখন তিনি না দেখেই আল্লাহর উপর ঈমান ধরে রেখেছিলেন। ঐ মুহুর্তে তিনি কেবল আল্লাহর ক্রোধ বা রাগই দেখতে পেয়েছিলেন (মথি ২৭:৪৬)। এভাবেই তিনি সন্দেহপ্রবণ সকল থোমাদের শাস্তি নিজে বহন করেছিলেন। আর সেজন্যই তিনি আজ তাদেরকে সাহায্য করতে সক্ষম।


    Version for printing    
    Downloads    
    Contact us    
    Web-master